1. support@renexlimited.com : Renex Ltd : Renex Ltd
  2. nirobislamrasel@gmail.com : Shuvo Khan : Shuvo Khan
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

‘বাঁশখালীতে নিহত প্রত্যেক শ্রমিকের পরিবার পাবে ২ লাখ টাকা’

নিজস্ব সংবাদদাতা
  • সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১

চট্টগ্রামের বাঁশখালীর নির্মাণাধীন বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক বিক্ষোভে নিহত প্রত্যেক শ্রমিকের পরিবার দুই লাখ টাকা করে পাবে। এ ছাড়া আহত শ্রমিকদের প্রত্যেকের চিকিৎসার জন্য ৫০ হাজার টাকা করে সহায়তা দেওয়া হবে।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে এ সহায়তা দেওয়া হবে।

আজ সোমবার (২৬ এপ্রিল) শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান এক বিবৃতিতে এ সহায়তার কথা জানান।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বাঁশখালীর ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক এবং বেদনাদায়ক। একটি শ্রমজীবী পরিবারের কর্মক্ষম ব্যক্তিটির মৃত্যু হলে সে পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়ে। সে অসহায় শ্রমিক পরিবারকে শ্রম মন্ত্রণালয়ের শ্রমিক কল্যাণ তহবিল থেকে সহযোগিতার সুযোগ রয়েছে।’

নিহত শ্রমিকদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন প্রতিমন্ত্রী। এ ছাড়া যাঁরা আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন, তাঁদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন তিনি।

বাংলাদেশ শ্রম আইন অনুযায়ী, গঠিত বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে কর্মস্থলে দুর্ঘটনায় কোনো শ্রমিক নিহত হলে নিহত শ্রমিকের পরিবারকে সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা পর্যন্ত এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত সহায়তার বিধান রয়েছে।

গত ১৭ এপ্রিল চট্টগ্রামের বাঁশখালীর কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিকদের ১১ দাবিতে বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশের গুলিতে পাঁচ শ্রমিক নিহত এবং ৩২ আহত হন। সেদিন নিহতরা হলেন কিশোরগঞ্জের ফারুক আহমদের ছেলে মাহমুদ হাসান রাহাত (২২), চুয়াডাঙ্গার অলি উল্লাহর ছেলে মো. রনি হোসেন (২৩), নোয়াখালীর আব্দুল মতিনের ছেলে মো. রায়হান (১৯), চাঁদপুরের মো. নজরুলের ছেলে মো. শুভ (২২) এবং বাঁশখালীর পূর্ব বড়ঘোনার মওলানা আবু ছিদ্দিকীর ছেলে মাহমুদ রেজা (১৯)।

এরপর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান গুলিতে আহত আরো দুই শ্রমিক। এঁরা হলেন দিনাজপুরের ফুলবাড়িয়া উপজেলার আব্দুল মান্নানের ছেলে রাজিউল ইসলাম (২৫) এবং মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার আব্দুল মালেকের ছেলে শিমুল আহমেদ (২৩)।

আরও পড়ুন...
স্বত্ব © ২০২৩ প্রিয়দেশ
Theme Customized BY LatestNews
%d bloggers like this: